আমাজন এফিলিয়েশন থেকে আয়

পোস্ট  বার দেখা হয়েছে
ব্লগারদের আয়ের পদ্ধতিগুলির মধ্যে গুগলের এডসেন্স এবং আমাজন এফিলিয়েশন পছন্দের শীর্ষে। যারা বিনামুল্যের ব্লগার (ব্লগস্পট) ব্যবহার করেন তারাও সহজে আমাজনের এফিলিয়েশন ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য গুগলের সাথে আমাজনের রয়েছে বিশেষ চুক্তি। আমাজন এফিলিয়েশনের বিভিন্ন দিক ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরা হচ্ছে।

বাংলাদেশ থেকে  আয় করা নিশ্চয়ই কঠিন। কিন্তু কিছুটা  আয় করাও অনেকের কাছে যথেস্ট। বিশেষ করে এজন্য খুব বেশি সময় যখন দিতে হয় না।

আমাজন ব্যবহারের সুবিধেগুলি: আমাজন বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনলাইন দোকান। আলপিন থেকে উড়োজাহাজ সবই কেনা যায় তাদের কাছে। যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন তারা আমাজন সম্পর্কে জানেন। সেকারনে তাদের কাছে কিছু কিনতে ইতস্তত করেন না। অনেকে বই কেনার জন্য মুলত তাদের ওপরই নির্ভর করেন।
বিক্রির ওপর ভাল কমিশন দেয়। বইয়ের জন্য ৪% কমিশন হয়ত বেশি মনে নাও হতে পারে, কোন কোন পন্যের ক্ষেত্রে এর ১০ গুন পর্যন্ত কমিশন পাওয়া যায়।

আমাজন খুব সহজে যে কোন ব্লগে ব্যবহার করা যায়। তাদের অনুমোদন পাওয়াও খুব সহজ।
যারা কেনেন তারা একাধিক পন্য কেনেন, নিয়মিত কেনেন। আপনি যে পন্যের প্রচার করছেন সেটা ছাড়াও তাদের সাইট থেকে অন্যান্য যাকিছু কেনেন সেজন্যও আপনি টাকা পাবেন।
বড়দিন বা এধরনের বিশেষ সময়ে বিক্রির পরিমান সবচেয়ে বেশি।

আমাজন এফিলিয়েশন বলতে আসলে কি বুঝায়, আপনাকে কি করতে হবে সংক্ষেপে দেখে নেয়া যাক: আপনার নিজস্ব ব্লগ থাকতে হবে। যদি না থাকে তাহলে ভাল একটি বিষয় ঠিক করে এখনই শুরু করুন। যত আগে শুরু করবেন ভাল করার সম্ভাবনা তত বেশি।
ব্লগে যথেস্ট সংখ্যক ভিজিটর আনার ব্যবস্থা করতে হবে। ভিজিটর যত বেশি বিক্রির সম্ভাবনা তত বেশি। ব্লগে ভিজিটর বাড়ানোর মুল সুত্র উন্নতমানের বিষয় রাখা। অন্যান্য নানা বিষয়ে অনেকগুলি পোষ্ট রয়েছে এই সাইটে। সেগুলি মেনে ভিজিটর বাড়ানোর চেষ্টা করুন।
তাদের কাছে এফিলিয়েশন নেবেন। আমাজনের হোমপেজে এফিলিয়েশন লিংক পাবেন। সেখানে ক্লিক করে আবেদন করতে হবে।

সদস্য হওয়ার পর তাদের সাইট থেকে কোন পন্যের বিজ্ঞাপন নিজের সাইটে রাখতে চান সেগুলি বাছাই করবেন। সেগুলির জন্য কোড কপি করে নিজের সাইটে পেষ্ট করবেন।


ব্লগারের কাজ এটুকুই। ভিজিটর বিজ্ঞাপন দেখে সেই লিংকে ক্লিক করে তাদের সাইটে যাবেন। তিনি যাকিছু কিনবেন সেই বিক্রির জন্য আপনার নামে কমিশনের টাকা জমা হবে। জমা টাকা ব্যাংক চেক বা সরাসরি ব্যাংকে জমা করার মাধ্যমে উঠানো যায়।






পোস্ট লেখক:

আপনার একটি মন্তব্য একজন লেখক কে ভালো কিছু লিখার অনুপেরনা যোগাই তাই প্রতিটি পোস্ট পড়ার পর নিজের মতামত জানাতে ভুলবেন না। তবে বন্ধুরা এমন কোন মন্তব্য পোস্ট করবেন না যার ফলে লেখকের মনে আঘাত করে! কারণ একটা ভাল মন্তব্য লেখক কে ভাল কিছু লিখার অনুপেরনা যাগাই !


1 comments:

The Most Popular Traffic Exchange

Powered by APSense Business Network