ভিবিন্ন ধরণের ড্রাইভ ইনষ্টল করা, এর মাঝে দেখাবো কিভাবে ডিভিডি ড্রাইভ ইনষ্টল করে।

পোস্ট  বার দেখা হয়েছে
সিডিরম, ডিভিডিরম কিংবা ব্লু-রে এগুলি মুলত একই ধরনের ড্রাইভ। ড্রাইভের আকার সমান, কম্পিউটারের সাথে সংযোগ দেয়া হয় একইভাবে (ইন্টারনালগুলি)। কাজেই একটি ইনষ্টল করতে পারলে অন্যগুলিও ইনষ্টল করা যাবে একই নিয়মে।
বর্তমানে সিডিরম বা সিডি রাইটারের ব্যবহার নেই। ডিভিডি ড্রাইভগুলির ইন্টারফেসও ক্রমে আইডিই থেকে পরিবর্তিত হয়ে সিরিয়াল এটিএ (সাটা)র দিকে যাচ্ছে। দুধরনের ইন্টারফেসের ড্রাইভ ইনষ্টল করার পদ্ধতিই জেনে রাখুন।


আইডিই ডিভিডি ড্রাইভএগুলিতে আইডিই হার্ডডিস্কের মত একই ধরনের কেবল ব্যবহার করা হয়। এক কেবলের সাথে দুটি ড্রাইভ লাগানো যায়। লক্ষ্য করলে দেখবেন কেবলের একদিকে রং দেয়া থাকে, লাল অথবা নীল। এই রংকে ১ নং পিন হিসেবে ধরা হয়। ড্রাইভের কেবল লাগানোর যায়গাতেও একদিকে ১ অন্যদিকে ৪০ লেখা দেখা যাবে। এটা সঠিক দিক, উল্টোভাবে কেবল লাগাবেন না। যদিও অনেক কেবলই একটি ছিদ্র বন্ধ থাকার কারনে উল্টোভাবে লাগানো যায় না।সহজে বিষয়টি বোঝার জন্য রং দেয়া দিকটিকে পাওয়ার কেবলের ঠিক পাশে রাখুন।


সাটা ড্রাইভ

সাটা ড্রাইভগুলি একটিমাত্র চিকন কেবলের সাথে লাগানো হয়। এই কেবল উল্টোভাবে লাগানো যায় না। এরজন্য পাওয়ার কানেকটরও ভিন্ন ধরনের হতে পারে।

কোনটি কিনবেনআপনার কম্পিউটারের ওপর নির্ভর করে। পুরনো মাদারবোর্ডগুলিতে সাটা পোর্ট নাও থাকতে পারে। ড্রাইভ কেনার আগে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নিন। নতুন মাদারবোর্ডগুলিতে অনেকগুলি সাটা পোর্ট এবং অন্তত একটি আইডিই পোর্ট থাকে।কখন ইনষ্টল করবেন স্বাভাবিক ভাবেই, যদি আগের ড্রাইভ নষ্ট হয়। ডাইভ নষ্ট কিনা জানার কাজটিও তুলনামুলক সহজ। যদি কোন ডিস্ক কাজ না করে তাহলে ধরে নেবেন সেটা নষ্ট হয়েছে। কখনো কখনো বড় ধরনের সমস্যার কারনে পাওয়ার না আসার মত লক্ষও দেখা যেতে পারে।নষ্ট কিনা নিশ্চিত হওয়ার জন্য কেবলগুলি খুলে, প্রয়োজনে অন্য কেবল লাগিয়ে দেখে নিন। এক ডিস্কের বদলে অন্য ডিস্ক ব্যবহার করে দেখুন।


কিভাবে ইনষ্টল করবেনঅনেক কাজের জন্য কম্পিউটারের একদিক খোলাই যথেষ্ট। ডিভিডি-রম (রাইটার) খোলা বা রাগানোর জন্য দুদিকের ঢাকনাই খুলতে হবে।কম্পিউটার অফ করুন এবং পাওয়ার কেবলটি খুলে রাখুন.দুদিকের ঢাকনা খুলে ফেলুন।আগের ড্রাইভ থাকলে সেটা দুপাশে দুটি করে মোট ৪টি স্ক্র দিয়ে আটকানো থাকার কথা। স্ক্রুগুলি খুলে নিন।সামনের দিকে টেনে ড্রাইভটি বাইরে বের করে ফেলুন। নতুন ড্রাইভটি একইভাবে আগের যায়গায় রাখুন। সামনের অংশের সাথে সমানভাবে মিলিয়ে নিন।স্ক্রুগুলি আটকে দিন।কেবল সংযোগ দিন।পাওয়ার অন করুন।ড্রাইভের দুপাশেই দুটি করে স্ক্রু ব্যবহার করবেন। ড্রাইভ যেন নড়াচড়া না করে সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন।ডিভিডি রমে অডিও কেবল লাগানোর জন্য একটি যায়গা রয়েছে। মুলত অডিও সিডি থেকে গান শোনার জন্য একে সাউন্ডকার্ডের সাথে সংযোগ দিতে হয়। বর্তমানে এই কেবল ব্যবহার করা প্রয়োজন হয় না।


মাষ্টার অথবা স্লেভ হিসেবে ব্যবহার

আইডিই ড্রাইভগুলি যেহেতু একই কেবলে দুটি লাগানো যায় এদের একটিকে মাষ্টার অন্যটিকে স্লেভ হিসেবে ব্যবহার করতে হয়। এজন্য পেছনদিকে জাম্পার নামে একধরনের ছোট অংশ লাগানো প্রয়োজন হয়।জাম্পার লাগানোর যায়গাটি লক্ষ্য করুন। সেখানে মাষ্টার, স্লেভ, কেবল সিলেক্ট ইত্যাদি লেখা রয়েছে। একটি ড্রাইভকে মাষ্টার করুন, অপরটিকে স্লেভ করুন। সাধারন নিয়ম হচ্ছে হার্ডডিস্কের সাথে ব্যবহার করলে হার্ডডিস্ককে মাষ্টার করবেন এবং কেবলের প্রান্তে লাগাবেন। ডিভিডি-রমকে স্লেভ করবেন এবং কেবলের মাঝখানে লাগাবেন।
ডিভিডি রমের যত্নভিডিও দেখার জন্য ডিভিডি রম সরাসরি ব্যবহার না করে ভিডিওকে হার্ডডিস্কে কপি করে নিন।ব্যবহারের আগে ট্রে থেকে ধুলা মুছে নিন। এজন্য নরম, পরিস্কার কাপড় ব্যবহার করুন। ব্যাবহারের আগে ডিস্কে ধুলাবালি আছে কিনা দেখে নিন। প্রয়োজনে মুছে নিন।  দাগ পড়া ডিস্ক ব্যবহার করবেন না।ডিভিডি-র জন্য একধরনের ক্লিনার ডিস্ক পাওয়া যায়। এগুলি ব্যবহার করতে পারেন।  ডিস্ক ভেতরে আটকে গেলে সরু, লম্বা এবং শক্ত তারের মত কিছু নিন (পেপার ক্লিপ সোজা করে নিতে পারেন)। ড্রাইভের সামনের দিকে ছোট একটি ছিদ্র রয়েছে এটা ঢুকানোর জন্য। সাবধানে ঢুকিয়ে চাপ দিন, ট্রে খুলে যাবে।ডিভিডি ভিডিও দেখার জন্য প্লেয়ার সফটঅয়্যার (পাওয়ার ডিভিডি), রাইটার ব্যবহার করে রাইট করার জন্য রাইটিং সফটঅয়্যার (নিরো) ইত্যাদি প্রয়োজন হতে পারে। এগুলি ইনষ্টল করে নিন। 






পোস্ট লেখক:

আপনার একটি মন্তব্য একজন লেখক কে ভালো কিছু লিখার অনুপেরনা যোগাই তাই প্রতিটি পোস্ট পড়ার পর নিজের মতামত জানাতে ভুলবেন না। তবে বন্ধুরা এমন কোন মন্তব্য পোস্ট করবেন না যার ফলে লেখকের মনে আঘাত করে! কারণ একটা ভাল মন্তব্য লেখক কে ভাল কিছু লিখার অনুপেরনা যাগাই !


0 comments:

URS mytrafficvalue
ILM
The Most Popular Traffic Exchange
MX.WORLD