ফোরেক্স ট্রেড হতে পারে ইন্টারনেট ব্যবহার করে আয়ের পদ্ধতি

পোস্ট  বার দেখা হয়েছে
ইন্টারনেট ব্যবহার করে আয় করা যায় একথার প্রতিক্রিয়া একেকজনের কাছে একক রকম। অনেকে সহজে আয়ের পদ্ধতি যাচাই করে হতাস হয়েছেন সামান্য আয় দেখে। অনেকে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে গিয়ে প্রতিযোগিতার মুখে ভাল করতে পারেননি। এই দুইয়ের মাঝামাঝি পদ্ধতি হতে পারে ফোরেক্স ট্রেডিং। এখানে ফ্রিল্যান্সিং এর মত কোন বিষয়ে দক্ষ হতে হয় না। মোটামুটিভাবে ট্রেডিং বুঝলে কাজ করা যায়। জানার জন্য সুযোগ রয়েছে প্রচুর।

শুরুতেই সাবধান করে নেয়া ভাল, ফোরেক্স ট্রেড অনেকটাই শেয়ার বাজারের মত। বাংলাদেশের শেয়ার বাজারের বিনিয়োগ কারীরা ভাল করেই জানেন এতে দ্রুত লাভ যেমন হতে পারে তেমনি বড় ধরনের লোকসানও হতে পারে। ট্রেডিং ভালভাবে না বুঝে টাকা বিনিয়োগ করবেন না।


ফোরেক্স আসলে কি
ফোরেক্স শব্দ এসেছে ফরেন এক্সচেঞ্জ থেকে। প্রতি মুহুর্তে বৈদেশিক মুদ্রার যে লেনদেন হচ্ছে তার আন্তর্জাতিক বাজার ফোরেক্স। ইন্টারনেটের মাধ্যমে সেখানে যে কোন সময় বিনিয়োগ করা যায়, যে কোন মুহুর্তে লাভের টাকা উঠিয়ে নেয়া যায়। প্রতি মুহুর্তের লেনদেনের হার গ্রাফের মাধ্যমে দেখানো হয়।
শুরুতে শেয়ার বাজারের সাথে তুলনা করলেও ফোরেক্স ট্রেড কিছুটা ভিন্ন। এই ট্রেড হয় দুটি মুদ্রা অথবা কোন পন্যের দামের মধ্যে।
উদাহরন দিয়ে দেখা যাক। মাসখানে আগে অষ্ট্রেলিয়ান ডলারের মুল্য ছিল আমেরিকান ডলারের থেকে বেশি। বর্তমানে আমেরিকান ডলার থেকে অনেক কম। কিংবা ডলারের তুলনায় ভারতীয় রুপির মুল্য ক্রমেই কমছে। দুটি মুদ্রার দামের তারতম্যের বিষয়টি ঘটে প্রতি সেকেন্ডে। এই দুই মুদ্রার পার্থক্যকে ব্যাবসার কাজে লাগিয়ে আয় করা পদ্ধতি ফোরেক্স।
ধরা যাক আপনি ডলার এবং ইউরো এই দুই মুদ্রায় ডলারের পক্ষে বিনিয়োগ করছেন। এই মুহুর্তে ১ ডলারের বিপরীতে ইউরোর দাম ০.৭৬৮৭৬ ডলার। গ্রাফ দেখে আপনার মনে হয়েছে ডলারের বিপরীতে ইউরোর দাম বাড়তে পারে। কাজেই আপনি ১০০০ ইউরো কিনলেন। ১০ সেকেন্ড পর দেখা গেল ০.০০০২ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই ১০ সেকেন্ডে আপনার লাভ ০.০২ ইউরো। এখন বিক্রি করে দিলে লাভের টাকা আপনি পাবেন। আর যদি ইউরোর মুল্য হ্রাস পায় (ডলারের দাম বাড়ে) তাহলে সেই পরিবর্তন আপনার লোকসান।
ফোরেক্স এর সুবিধে হচ্ছে যে কোন মুহুর্তে আপনি কিনতে বা বিক্রি করতে পারেন। ইউরোর বদলে ডলারের বিপরীতে নিজের টাকা ব্যবহার করতে পারেন।
বর্তমানে সোনার দাম দ্রুত কমছে। একে ব্যবহার করেও আয় করা যেতে পারে। আপনার বিনিয়োগ যদি ডলারের পক্ষে হয় তাহলে সোনার দাম যত কমবে আপনার লাভ তত বেশি, দাম বাড়লে ক্ষতি। আর সোনার বিপরীতে হলে দাম যত বাড়বে তত লাভ, কমলে ক্ষতি। এখানেও যে কোন মুহুর্তে দিক পরিবর্তন করতে পারেন।
কখন কোন পক্ষে বিনিয়োগ করলে লাভ হবে এটা বোঝাই ব্যবসার মুলকাঠি। এজন্য নানা ধরনের বিশ্লেষনের ব্যবস্থা আছে। ফোরেক্স ট্রেড শেখার অর্থ এগুলি বোঝা।

বাস্তবে ফোরেক্স ট্রেড কিভাবে করতে হয়
ফোরেক্স ট্রেড করার জন্য কোন ব্রোকারের সদস্য হতে হয়। বিশ্বে হাজার হাজার ব্রোকার সাইট রয়েছে, যে কোন সময় তাদের সদস্য হওয়া যায়। এখানেও সাবধান থাকা ভাল, ভাল সাইটের পাশাপাশি অনেক ভুয়া সাইটও রয়েছে যারা জালিয়াতি করতে পারে। ৫ বছরের বেশি সময় ধরে কাজ করছে এমন সাইটকে বিশ্বাস করা যায়। ফোরেক্স ট্রেডের জন্য অধিকাংশ ক্ষেত্রে মেটা ট্রেডার নামে একটি সফটঅয়্যার ব্যবহার করা হয়। ব্রোকার সাইট থেকে ডাউনলোড করে ইনষ্টল করে নিন এবং তাদের নির্দেশগুলি পড়ুন।
ফোরেক্স সাইটগুলিতে ডামি ট্রেড বলে একটি বিষয় রয়েছে। সেখানে সদস্য হলে কাল্পনিক টাকা ব্যবহার করে ট্রেড করতে পারেন। আপনি হয়ত তাদের কাছে ১০ হাজার ডলার নিয়ে বিনিয়োগ করলেন। সেটা ব্যবহার করে কিভাবে লাভ করা যায়, লোকসান ঠেকানো যায় ইত্যাদি পরীক্ষা করলেন। সত্যিকারের টাকা থেকে পার্থক্য হচ্ছে এখানে সত্যিকারের টাকা ব্যবহার হচ্ছে না বলে লোকসান হওয়ার ভয় নেই, আবার বহুটাকা লাভ করলে সেটা পাওয়ার উপায়ও নেই।
আপনি ফোরেক্স বুঝেছেন, লাভ করতে পারেন, লোকসানের সম্ভাবনা নেই, তখন সত্যিকারের টাকা দিয়ে ট্রেড করতে পারেন। টাকা লেনদেনের জন্য স্ক্রিল (মানিবুকারস), পেজা (এলার্ট-পে) ইত্যাদি ব্যবহার করা যায়। প্রথমবার টাকা দেয়ার জন্য কোন ফ্রিল্যান্সারের সাহায্য নিতে পারেন।
সবচেয়ে কম বিনিয়োগের পরিমান একেক ব্রোকারের একেকরকম। ১, ৫০, ১০০, ২০০ ডলার ইত্যাদি। তারা এর ওপর ১০০০ গুন পর্যন্ত লোন দেয়। অর্থাত ১০০ ডলার বিনিয়োগ করে বাস্তবে ১ লক্ষ ডলারের ব্যবসা করতে পারেন। আবারও সাবধান, এভাবে অতিরিক্ত টাকা বিনিয়োগ করবেন না। লাভের সম্ভাবনার পাশাপাশি লোকসানের ঝুকিও বৃদ্ধি পাবে।
সাধারন সাবধানতার নিয়ম, যে ট্রেডে দ্রুত পরিবর্তণ হয় এমন ট্রেড করবেন না। নতুনদের জন্য তুলনামুলক স্থিতিশীল ডলার-ইউরো-পাউন্ড ইত্যাদি নিরাপদ।

কিভাবে শিখবেন
ভালভাবে না বুঝে ফোরেক্স ট্রেড করা উচিত না। যদি একাজ করতে চান তাহলে ভালভাবে জানার চেষ্টা করুন। ইন্টারনেটে ভিডিও টিউটোরিয়াল, ইবুক ইত্যাদি থেকে যতটা সম্ভব বোঝার চেষ্টা করুন। অন্তত ১ মাস ডামি ট্রেড করুন।
অনেক ট্রেনিং সেন্টার ফোরেক্স বিষয়ে ট্রেনিং দেয়। এদের সমস্যা হচ্ছে এই বিষয়ে আগ্রহি করার জন্য ক্ষতির দিকগুলি তারা অনেকসময় এড়িয়ে যায়।  সব শোনা কথা বিশ্বাস করবেন না। নিজে যাচাই করে নিন।

শনি এবং রবিবার বাদ দিয়ে সপ্তাহের বাকি দিনগুলি ২৪ ঘন্টা ফোরেক্স ট্রেড করা যায়। দিনের যে কোন সময় কিছু সময় ব্যয় করা যেতে পারে। একসময় নিয়মিত পেশায় পরিনত হতে পারে।






পোস্ট লেখক:

আপনার একটি মন্তব্য একজন লেখক কে ভালো কিছু লিখার অনুপেরনা যোগাই তাই প্রতিটি পোস্ট পড়ার পর নিজের মতামত জানাতে ভুলবেন না। তবে বন্ধুরা এমন কোন মন্তব্য পোস্ট করবেন না যার ফলে লেখকের মনে আঘাত করে! কারণ একটা ভাল মন্তব্য লেখক কে ভাল কিছু লিখার অনুপেরনা যাগাই !


0 comments:

URS mytrafficvalue
ILM
The Most Popular Traffic Exchange
MX.WORLD