কম্পিউটার সমস্যা হলে কি করবেন

পোস্ট  বার দেখা হয়েছে
আজ একটু অন্য কিছু নিয়ে হাজির হলাম আশাকরি আপনাদের ভালো লাগবে তবে নতুনদের জন্য বেশি উপযোগী। কম্পিউটারের পাওয়ার সুইচে চাপ দিলেন, আপনার কম্পিউটার চালু হল না। কম্পিউটার ব্যবহার করছেন অথচ এই সমস্যায় পড়েননি এটা অস্বাভাবিক ঘটনা। যদি এখনো না হয়ে থাকে তাহলে আগামীতে হতে পারে ধরে নিন। কোন সমস্যা হলে আপনি নিজেই সব সমস্যার সমাধান করে ফেলবেন এটাও নিশ্চয়ই ঠিক না। হয়ত অন্য কারো সাহায্য প্রয়োজন হবে, হয়ত কিছু কিনতে হবে। আপনার কাজ সিদ্ধান্ত নেয়া। কিভাবে সেটা করতে পারেন সেটাও জেনে নিন।


সুইচ টিপলে লাইট না জ্বললে তার অনেকগুলো কারন থাকতে পারে। হয়ত লাইটটি নষ্ট, সুইচ নষ্ট, লাইনে কোন গন্ডগোল। অথবা ইলেকট্রিসিটি নেই। কম্পিউটারের ক্ষেত্রে সমস্যার কারন আরো বেশি। প্রথম কারন হিসেবে বাইরের বিষয়গুলি নিশ্চিত হয়ে নিন। ইলেকট্রিসিটি আছে কি ? যে সকেট ব্যবহার করছেন সেটা কি ঠিক আছে ? যে কেবল ব্যবহার করছেন সেটা কি ঠিক আছে ? ইউপিএস বা অন্য কিছু থাকলে সেটা কি অন করা হয়েছে ? সেটা কি ঠিক আছে ? এমনকি কম্পিউটারের সুইচেও গন্ডগোল হতে পারে।অনেকগুলি প্রশ্ন। যদিও এগুলির উত্তর বের করা তুলনামুলক সহজ। অন্য কিছু লাগিয়ে দেখা সম্ভব সেখানে পাওয়ার আছে কিনা, এক লাইনের বদলে অন্য লাইন ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে, অন্য কেবল ব্যবহার করে দেখা যেতে পারে। এসব পদ্ধতি তো আপনি জানেন।

কোনভাবে আপনি নিশ্চিত হলেন আপনার পাওয়ার লাইন ঠিক আছে। সমস্যা কম্পিউটারেই। সেক্ষেত্রে আপনার প্রথমেই জানা প্রয়োজন সমস্যা মনিটরে নাকি কম্পিউটারে (কম্পিউটার বলতে হার্ডডিস্ক, মাদারবোর্ড সহ ইউনিটটি বোঝানো হচ্ছে)।

এভাবে উল্লেখ করার কারন অভিজ্ঞতা না থাকলে আপনি সহজেই বিভ্রান্ত হতে পারেন। আপনি দেখতে পাচ্ছেন মনিটরের পাওয়ার জ্বলছে কাজেই ধরে নিচ্ছেন মনিটর ঠিক আছে, সমস্যা কম্পিউটারে। সেটা নাও হতে পারে।

মনিটরের পাওয়ার যদি কম্পিউটারের পেছন থেকে নেয়া হয় তাহলে পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিট নষ্ট হওয়ার পরও মনিটরে পাওয়ার যাবে (এটা একটা বাইপাস লাইন)। কাজেই আপনি নিশ্চিত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন না পাওয়ার সাপ্লাই নষ্ট কিনা।

বর্তমানের পাওয়ার সাপ্লাই ইউনিটগুলি আগের মত মেকানিকাল সুইচ ব্যবহার করে না। কাজেই পাওয়ার সুইচ অন করলেই চালু হবে (ফ্যান দেখে বোঝা) এমন কথা নেই। ভাল পাওয়ার সাপ্লাইও বিভিন্ন কারনে অন না হতে পারে।

বিপরিতভাবে, আপনার কম্পিউটার হয়ত ঠিকই আছে, ঠিকভাবে কাজ করছে, মনিটরের পাওয়ার জ্বলে বলে ধরে নিচ্ছেন মনিটরও ঠিক আছে, অথচ ডিসপ্লেতে কিছু দেখা যাচ্ছে না। মনিটর নষ্ট হলেও সেটা হতে পারে।

আপনার প্রথমে জানা প্রয়োজন আপনি মাথা ঘামাবেন কাকে নিয়ে। যারা অভিজ্ঞ তারা হয়ত খুব সহজেই ধারনা করে নিতে পারেন। আপনিও অভিজ্ঞতা বাড়াতে চেষ্টা করুন। এই লক্ষগুলি দেখুন।

কম্পিউটার স্বাভাবিকভাবে কাজ করার সময় বেশকিছু বিষয় দেখে সেটা জানা যায়। কম্পিউটারের পাওয়ার ইন্ডিকেটর জ্বলে, হার্ডডিস্কের ইন্ডিকেটর থেকে কাজ করছে কিনা জানা যায়, কিবোর্ডের লাইট জ্বলে ইত্যাদি। যদি এই কাজগুলি হয় তাহলে জানবেন কম্পিউটার ঠিক আছে।কম্পিউটার অন করলে যদি শব্দ শোনা যায় (বিপ) তাহলে জানবেন সমস্যা কম্পিউটারে (মেমোরী, ডিসপ্লে কার্ড কিংবা মাদারবোর্ড)।বাস্তবে সরল সমাধান হচ্ছে কম্পিউটারে অন্য মনিটর লাগিয়ে দেখা এবং মনিটরটি অন্য কম্পিউটারে লাগিয়ে দেখা। আপনি নিশ্চিত হতে পারেন কাকে নিয়ে মাথা ঘামাতে হবে।

মনিটর সমস্যা হলে আপনার কিছুই করার নেই। যারা ইলেকট্রনিক রিপিয়ারিং এর কাজ করেন তাদের কাছে নিতে হবে অথবা নতুন মনিটর কিনতে হবে।কম্পিউটারের বিভিন্ন অংশ যেহেতু পৃথক পৃথক ভাবে বদল করা যায়, আপনি নিজেও কিনে বদল করে নিতে পারেন, সেকারনে অনেকটা কাজই আপনি নিজে করতে পারেন।এজন্য অবশ্যই আপনাকে কম্পিউটার খুলতে হবে, আরো ভেতরে নাক ঢুকাতে হবে। সেটা উল্লেখ করা হবে আগামীতে, ধাপে ধাপে।আপাতত এটুকু জেনে রাখুন, প্রায় সমস্ত কম্পিউটারেই একই মাপের স্ক্রু ব্যবহার করা হয়। আপনি একটি বা দুটি স্ক্রুড্রাইভার ব্যবহার করে কম্পিউটার খুলতে লাগাতে পারেন। অনেক কম্পিউটারের মুল বাক্স (কেসিং) থাম্ব স্ক্রু ব্যবহার করা হয়। সেগুলি হাত দিয়ে খোলা যায়। যদি নিজে কাজ করতেই চান অন্তত সাধারনমাপের স্ক্রুড্রাইভার সংগ্রহ করুন।







পোস্ট লেখক:

আপনার একটি মন্তব্য একজন লেখক কে ভালো কিছু লিখার অনুপেরনা যোগাই তাই প্রতিটি পোস্ট পড়ার পর নিজের মতামত জানাতে ভুলবেন না। তবে বন্ধুরা এমন কোন মন্তব্য পোস্ট করবেন না যার ফলে লেখকের মনে আঘাত করে! কারণ একটা ভাল মন্তব্য লেখক কে ভাল কিছু লিখার অনুপেরনা যাগাই !


0 comments:

URS mytrafficvalue
ILM
The Most Popular Traffic Exchange
MX.WORLD